Breaking News

লক ডাউনে প্রকৃতি ফিরে পাচ্ছে তার নিজের সৌন্দর্য। দেখা গেল গঙ্গার পরিশ্রুত জল এবং অপরুপ দৃশ্য

ঘন নীল জল বইছে গঙ্গায়। জলের স্বচ্ছতা এতই বেশি যে নীচের নুড়ি-পাথর স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে। চাইলে গোনাও যাবে। সম্প্রতি এমনই দৃশ্য দেখা গিয়েছে হৃষীকেশের কাছে লছমনঝোলায়। টুইটারে ভিডিও শেয়ার করেছেন আইএফএস অফিসার সুশান্ত নন্দা। গঙ্গা নদীর এমন অচেনা ছবি দেখে অবাক টুইটারিয়ানরা। লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে রিটুইট-লাইক-কমেন্টের সংখ্যা।

করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। সংক্রমণ রুখতে মরিয়া প্রশাসন। গত ২৫ মার্চ থেকে চালু হয়েছে এই লকডাউন। চলবে ৩ মে পর্যন্ত। তার পরেও কিছু কিছু জায়গায় বাড়তে পারে। লকডাউনের জেরে বন্ধ রয়েছে সমস্ত কারখানা। সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ যান চলাচল। ফলে বাতাসে যেমন দূষণের মাত্রা কমেছে তেমনই কমেছে জলদূষণের মাত্রা। কারখানা বন্ধ থাকায় সেখান থেকে নির্গত বর্জ্যপদার্থ কিংবা বিষাক্ত উপাদান মিশ্রিত জল এখন মিশতে পারছে না গঙ্গায়। সেই সঙ্গে গৃহবন্দি গোটা দেশ। অতএব অবিবেচকের মত কেউ গঙ্গায় আবর্জনা নিক্ষেপ করতেও পারছেন না। ফলে প্রকাশ্যে এসেছে গঙ্গায় বয়ে যাওয়া স্বচ্ছ নীল জলের ছবি।

কিছুদিন আগে বারাণসী থেকেই গঙ্গার একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন আর এক টুইটারিয়ান। সেখানেও দেখা গিয়েছিল স্বচ্ছ-পরিষ্কার জল বইছে গঙ্গায়। চিরাচরিত ঘোলাটে জলের ছবি একেবারেই উধাও। সম্প্রতি হরিদ্বারের হরকি-পৌরি এলাকায় গঙ্গার জল এত স্বচ্ছ-পরিষ্কার এবং পরিশ্রুত ছিল যে বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন চাইলে পানীয় হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে।

টুইটারে এইসব ভিডিও দেখে নেটিজেনরা একবাক্যে স্বীকার করেছেন, প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য বিনাশের পিছনে অন্যতম মানজাতি। অনেকে আবার এও বলেছেন, “এখন লকডাউনের দৌলতে গঙ্গার জল তার আসল রূপ ফিরে পেয়েছে। তবে সব মিটলেই হয়তো আবার সেই আগের মতোই হয়ে যাবে সবকিছু। মানবজাতিকে বিশ্বাস করা বড়ই কঠিন ব্যাপার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *