Breaking News

ঘরে বসে আয় করার প্রচুর উপায় আছে, তার মধ্যে ১০টি জনপ্রিয় ব্যাবসার সুলুক সন্ধান জেনে নিন আমাদের কাছে

ঘরে বসে ব্যবসা বা কাজ করার মধ্যে যেমন আনন্দ রয়েছে তেমনি পরিবারের সাথে বেশী সময় কাটানো যায়। বর্তমানে ব্যবসার পরিধি যেমন বেড়েছে, এসেছে নতুন অনেক ব্যবসা, তেমনি বেড়েছে মানুষের চাহিদা। তাই ঘরে বসে ব্যবসা শুরু করতে চাইলে সঠিক ব্যবসার ক্ষেএ খুঁজে বের করতে হবে। চলুন দেখে নেই কি কি ব্যবসা আপনি চাইলে ঘরে বসে শুরু করতে পারেন।

১. ওয়েব ডিজাইন
সময়ের সেরা একটি ব্যবসা বা সেবা ওয়েব ডিজাইন করা। এই ব্যবসা আপনি ঘরে বসেই শুরু করতে পারেন। দক্ষতা ও পরিশ্রম করতে পারলে সফল হতে পারবেন।

২. ই-কমার্স
বর্তমানে ই-কমার্সের প্রতি মানুষের আস্থা বেড়েছে ঠিক তেমনি নিত্য নতুন ব্যবসা নিয়ে ই-কমার্স জগতে নতুন মুখ আসছে। তাই আপনি যদি ঘরে বসে ব্যবসা করতে চান তাহলে শুরু করুন ই-কমার্স ব্যবসা। এই ব্যবসায় সফল হতে হলে ইউনিক পণ্যের যেমন দরকার তেমনি সৎ ও পরিশ্রমী হতে হবে।

৩. টি-শার্ট ব্যবসা
এটি এমন একটি ব্যবসা যার চাহিদা বছরের সব সময়ই রয়েছে। সমসাময়িক বিষয়ের উপর ডিজাইন করে টি-শার্ট বানিয়ে শুরু করতে পারেন ব্যবসা। বেশী বিক্রি পেতে চাইলে ফেইসবুকে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।

৪. ডে-কেয়ার ব্যবসা
বিদেশে অনেক আগে থেকেই ডে-কেয়ার ব্যবসা চালু থাকলেও আমাদের দেশে এখন পর্যন্ত খুব বেশী একটা ডে-কেয়ার নেই। অনেকই তাদের সোনামনিদের রেখে কাজ করতে পারেন না বিধায় ডে-কেয়ারে রেখে যায়। আপনি চাইলে আপনার বাসায় ছোট পরিসরে ডে-কেয়ার ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আরো পড়ুন – জীবনে বড় হতে হলে কখনই নিজেকে ছোট ভাববেন না

৫. পুরানো দিনের জামা কাপড় বিক্রি
মানুষ যেমনি নতুন ভালবাসে ঠিক তেমনি পুরানো দিনের পণ্যও ভালবাসে। তাই পুরানো দিনের ডিজাইন নিয়ে বানাতে পারেন পাঞ্জাবী, মেয়েদের থ্রী-পিস ইত্যাদি।

৬. জন্মদিনের পার্টি মুকুট বানিয়ে অনলাইনে বিক্রি করতে পারেন। এই ব্যবসা খুবই অল্প টাকা দিয়ে শুরু করা যেতে পারে।

৭. ইউটিউবে নিজের বানানো ভিডিও আপলোড করে আয় করুন। ইউটিউবে কাজ করে সফল হতে হলে কোন ভিডিও কপি করা যাবে না।

৮. আর্টিকেল লিখে ঘরে বসে আয় করতে পারেন। আর্টিকেল লেখা নিয়ে অনেক ফেসবুক গ্রুপ আছে সেখানে যুক্ত হয়ে নিজেই নিজের কাজ খুঁজে পেতে পারেন।

৯. জুয়েলারি পণ্য ডিজাইন করতে পারেন।

১০. অ্যাপ ডিজাইনার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *