Breaking News

একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলো উত্তর প্রদেশে আবার। আততায়ীর হাতে খুন হলেন মন্দিরের দুই পুজারী ব্রাহ্মণ

আবার নির্মম ভাবে হত‍্যা করা হল দুজন সাধুকে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে উত্তরপ্রদেশের অনুপসাহারা এলাকার পাগোনা গ্রামে।
জানা যাচ্ছে ঐ দিন রাতে গ্রামের মন্দিরে দুই সাধুর ক্ষতবিক্ষত দেহ পাওয়া যায়। উত্তর প্রদেশ পুলিশ গ্রামবাসীদের সাক্ষী তে এক যুবককে গ্রেফতার করেন।বুলান্দশহরের এসএসপি সন্তোষ সিং জানান দিন দুয়েক আগেই এই যুবকের সাথে চিমটা চুরি করার অভিযোগে দুই সাধুর , জগদীশ ওরফে রঙ্গীদাশ(৫৫) এবং তার শিষ‍্য শের সিং(৪৬)বচসা বাঁধে বলে গ্রামবাসীদের থেকে জানা যায়।
গ্রামবাসীদের অভিযোগে রাজু নামের ঐ যুবককে পুলিশ গ্রেফতার করলেও জানা যায় যে সে মাদকাসক্ত অবস্থায় থাকায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা যায়নি। পুলিশ তার হুঁশ ফেরার অপেক্ষায় আছে।
উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্য নাথ এই ঘটনাটি পর্যবেক্ষণের জন্য সিনিয়র অফিশিয়াল কে নিযুক্ত করেছেন।


এর আগেও মহারাষ্ট্রে ১৬ই এপ্রিল দুজন নাগা সন্ন‍্যাসী এবং তাদের গাড়ি চালককে একদল আঁততায়ী পুলিশের সম্মুখে নৃশংস ভাবে হত‍্যা করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের পালঘর নামক এলাকায়। বলা হচ্ছে দুই সন্ন‍্যাসী সুশীলগিরী মহারাজ(৩০),চিকনে মহারাজ কল্পবৃক্ষ গিরী(৭০) এবং তাদের গাড়ি চালক নীলেশ তেলওয়াদে(৩০) ১৮ই এপ্রিল শনিবার কান্দবলি ইস্টের বাসিন্দা এবং তারা নাসিক থেকে সুরতে নিজের গুরু শ্রী রামগিরী মহারাজের অন্তেষ্টি ক্রিয়াতে যাচ্ছিলেন,সাথে কিছু সামগ্রীও ছিলো। মাঝ রাস্তায় গড়চিঞ্চলে গ্রামের পালাঘরের কাছে ওনাদের গাড়ি খারাপ হয়ে গেলে প্রায় ২০০ আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ ঐ দুজন দশম নাগা সম্প্রদায়ের সন্ন‍্যাসীদের গাড়ির চালক সহ পিটিয়ে খুন করে এবং হত‍্যাকারী কে পুলিশ গ্রেফতার করতে অক্ষম হওয়ায় দেশজুড়ে উদ্ভব ঠাকরের এবং কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় উঠেছিল।
প্রায় ১০ দিনের মাথায় আবার দুজন সাধুর হত‍্যা হল উত্তর প্রদেশে। কিন্তু যোগী সরকারের তৎপরতায় আরোপী কে গ্রেফতার করা হয় ২৪ঘন্টা অতিক্রমের আগেই‌।
বিশিষ্ট মহলে সোমবারের এই ঘটনার পর আবার কড়া ভর্ৎসনার শিকার হতে হয় উদ্ভব ঠাকরে এবং কংগ্রেস সরকার কে। অনেকেই এই প্রশ্ন করছে যে কংগ্রেস সরকার এবং শিবসেনা গোদির লোভে কাকে আড়াল করতে চাইছে।
স‍্যোশাল মিডিয়াতে সমালোচনার ঝড় ওঠে যে, তাহলে কি সত‍্যিই সন্ন‍্যাসীরা মহারাষ্ট্রে নিরাপদ নয়, মহারাষ্ট্রের সরকার ছদ্মসেক‍্যুলারিজম দেখাতে গিয়ে একদল মানুষ সবসময় নিপীড়িত থাকবে এবং তারা কোন বিচার পাবে না? উদ্ভব ঠাকরে কে যথেষ্ট পরিমাণেই কিছু তীর্যক প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হচ্ছে বার বার তার বাবা বালা সাহেব ঠাকরের নীতির সাথে তার নীতির তুলনা আসছে। অপর পক্ষে যোগী সরকারের কাজের তৎপরতায় মুখর হয়েছে কিছু মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *