Breaking News

ঘুরে আসুন মাওসমাই, মেঘালয়ের অভ্যন্তরে এক সুদীর্ধ প্রাকৃতিক গুহায় থাকুন কিছুক্ষন

( ছবি ক্রেডিট- গুগুল )

মেঘালয়ের পাহাড়ের বুকের ভেতরেও রয়েছে এক আশ্চর্য জগৎ। বলছি মাওসমাই গুহার কথা। জঙ্গুলে একটা জায়গা। ঝিরঝির বৃষ্টি । গুহাটা ছোট, ঘুরতে দশ-বারো মিনিটের বেশি লাগবে না।কিন্তু এই অল্প সময়টুকুতেই অসাধারণ অভিজ্ঞতা হবে। স্বাচ্ছন্দ্যেই গুহায় হাঁটতে পারা যায়। সত্যিই সে এক অন্য জগৎ। মেঝে থেকে শুরু করে ছাদ পর্যন্ত পুরোটাই পাথরের তৈরি। ছাদ আর দেয়াল চুঁইয়ে অবিরাম জল গড়িয়ে পড়ছে। কোনো কোনো জায়গায় বাথরুমের শাওয়ারের মতো ভিজিয়ে দিচ্ছে। পুরো গুহার মেঝেতে তাই গোঁড়ালি সমান জলে। ভিজতে ভিজতে গুহা জুড়ে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা পাথর অদ্ভুত আকৃতি ধারণ করেছে।
গুহাটা চওড়ায় খুবই ছোট। পাশাপাশি দু’জন মানুষ হাঁটতে পারে না। কোনো কোনো জায়গায় পাথর বেয়ে একটু উপরে উঠে আবার নিচে নামতে হয়। কোথাও গুহা এতো সরু যে ভারি শরীরের মানুষ পার হতে পারবেন না।

গুহার ভেতর আলোর ব্যবস্থা আছে। কিন্তু প্রাকৃতিক আলো না ঢোকায় একটু অন্ধকারাচ্ছন্ন। প্রতিটা বাঁক পার হওয়ার সময় ভাবছিলাম বোধহয় এখানের গুহা শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু সামনে মিলছিলো আরেকটা বন্ধুর পথ। একদিকে দারুণ অ্যাডভেঞ্চার , আবার বেশ গা ছমছমও ।
সত্যি সত্যি এক সময় গুহার শেষ প্রান্তে পৌঁছে যান। বাইরে আলোর আভাস দেখে মনে হয় এতো সুন্দর দিন এর আগে কখনো দেখিনি! পাথরের ফাঁক গলে গুহার ভেতরে আলো ঢুকেছে। সে যে কী সুন্দর দৃশ্য। । ইশ্বরের অপরুপ এক সৃষ্টি। ঘুরে আসুন মাওসমাই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *